শনিবার ০২ জুলাই ২০২২, আষাঢ় ১৭ ১৪২৯, ০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

অর্থনীতি

নাটোরে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু

 প্রকাশিত: ১৫:০০, ২২ জুন ২০২২

নাটোরে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু

নাটোর জেলায় আজ বুধবার থেকে ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে ভর্তুকি মূল্যে টিসিবি’র পণ্যসামগ্রী বিক্রি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ সকাল ১০টায় নাটোর সদর উপজেলার দিঘাপতিয়া ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

জেলার ৫২টি ইউনিয়ন এবং আটটি পৌরসভার মোট ৯১ হাজার ২০০ পরিবার উপকারভোগীর তালিকায় থাকছেন। এ কার্যক্রমে প্রত্যেক পরিবার ৫৫ টাকা কেজি দরে এক কেজি করে চিনি, ৬৫ টাকা কেজি দরে দুই কেজি করে মসুরের ডাল, ১১০ টাকা লিটার দরে দুই লিটার করে সয়াবিন তেল পাচ্ছেন। জেলার ৫২টি ইউনিয়ন এবং আটটি পৌরসভা এলাকায় পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন বিক্রি কেন্দ্রে এ কার্যক্রম চলবে।

নাটোর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ আফরোজা খাতুন জানান,  উপজেলার মোট উপকারভোগীর সংখ্যা ১৫ হাজার ৬১০ জন। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সকল ইউনিয়ন পর্যায়ে এ কার্যক্রম চলবে।

এ কার্যক্রমের ফোকাল পয়েন্ট নাটোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ নাদিম সারওয়ার জানান, কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সমাধা করতে প্রত্যেক উপজেলায় জনপ্রতিনিধিবৃন্দের সাথে উপজেলা প্রশাসনের ট্যাগ টিম কাজ করছে।

টিসিবি’র ৩১ জন ডিলারের মাধ্যমে জেলায় এ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে বলে জানান জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট খালিদ হাসান।

উপকারভোগী গৃহবধূ আলেকজান তৃতীয়বারের মত হ্রাসকৃত মূল্যে নিত্য পণ্য বিপণন কার্যক্রম চালু করার জন্যে বর্তমান সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বললেন, আমাদের মত নিম্ন আয়ের মানুষরা এর মাধ্যমে অনেক উপকৃত হচ্ছেন। 

শৃংখলার সাথে কার্যক্রম সমাধা করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন দিঘাপতিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম বিদ্যুৎ।

জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, বর্তমান সরকার দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি এবং মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বিবেচনা করে  সাধারণ মানুষের কল্যাণে এ কার্যক্রম চালু করেছে। পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে আজ তৃতীয় পর্যায়ের বিপণন কার্যক্রম শুরু হলো। এ কার্যক্রমে জেলার প্রায় পাঁচ লাখ জনগোষ্ঠী উপকৃত হবেন। পাশাপাশি এ কর্মসূচির সুফল হিসেবে বাজারে দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে। 

মন্তব্য করুন: