সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪, আষাঢ় ৩১ ১৪৩১, ০৮ মুহররম ১৪৪৬

ব্রেকিং

ঢাবি ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের পিটুনিতে ছত্রভঙ্গ কোটাবিরোধীরা নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী ’৭১-এর পরাজিত অপশক্তির আস্ফালন মেনে নেওয়া হবে না: কাদের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা হলে কঠোর ব্যবস্থা : ডিএমপি কমিশনার মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া : প্রধানমন্ত্রী নিজেকে রাজাকার বলে স্লোগান দেওয়া রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল, শাস্তির দাবি ‘আমি মারা যেতে পারতাম’-নিউইয়র্ক পোস্টকে ট্রাম্প আমেরিকানদের শান্ত থাকার আহ্বান বাইডেনের নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন কেপি শর্মা অলি চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে কোকেনসহ নারী যাত্রী গ্রেফতার

ইসলাম

এটি হাদীস নয়"আজানের সময় কথা বললে মৃত্যুর সময় কালেমা নসিব হবে না"

 প্রকাশিত: ২৩:১৫, ২১ অক্টোবর ২০২৩

এটি হাদীস নয়

কিছু কিছু মানুষকে বলতে শোনা যায়, যে ব্যক্তি আযানের সময় কথা বলবে, মৃত্যুর সময় তার কালিমা নসীব হবে না।

এটি একটি জাল বর্ণনার বক্তব্য, এখানে একটু ভিন্ন ভাষায় পেশ করা হয়েছে। উক্ত জাল বর্ণনাটি সম্পর্কে এ বিভাগেই ইতিপূর্বে (ডিসেম্বর ২০০৫) লেখা হয়েছে। বর্ণনাটি হল-

مَنْ تَكَلَّمَ عِنْدَ الأَذَانِ خِيفَ عَلَيْهِ زَوَالُ الإِيمَانِ.

যে ব্যক্তি আযানের সময়ে কথা বলবে তার ঈমান চলে যাওয়ার আশংকা রয়েছে।

আল্লামা সাগানী রাহ. একে জাল বলেছেন। (দ্র. রিসালাতুল মাউযূআত ১২; কাশফুল খাফা ২/২২৬, ২৪০)

এ বর্ণনার ‘ঈমান চলে যাওয়ার আশংকা রয়েছে’- এ কথাকেই এখানে ‘মৃত্যুর সময় তার কালিমা নসীব হবে না’ বলে ব্যক্ত করা হয়েছে। সুতরাং তা একটি জাল ও ভিত্তিহীন কথা।

তবে আমাদের উচিত হল যে, আযানের সময় গল্প-গুজবে লিপ্ত না থেকে আযানের উত্তর দেওয়া। হাদীস শরীফে এসেছে, যে ব্যক্তি দিল থেকে আযানের উত্তর দেবে সে জান্নাতে প্রবেশ করবে। (দ্র. সহীহ মুসলিম, হাদীস ৩৮৫)

Online_News_Portal_24