ব্রেকিং:
মার্কিন গোয়েন্দা বিমানকে অবতরণের অনুমতি দেয়নি ইন্দোনেশিয়া ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ১৮, নতুন আক্রান্ত ১৩৮০ প্রযুক্তিনির্ভর তরুণরাই উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়ার হাতিয়ার: পলক আজারবাইজান ও আর্মেনিয়াকে অস্ত্রবিরতির প্রতি আহ্বান জাতিসংঘের

মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৫ ১৪২৭,   ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
তৃতীয় দিনেও উত্তাল নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস কোয়ারেন্টাইন ব্যর্থতার কারণে করোনায় আক্রান্ত বাড়ছে: ডব্লিউএইচও ক্যাসিনো ইসমাইল হোসেন সম্রাটের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ৩০ নভেম্বর এসআই আকবরকে ধরিয়ে দিতে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা তাইওয়ানে মার্কিন হস্তক্ষেপ রোধ করবে চীন
৩১

১৪ বছরের ব্যবধানে কর্ণফুলী নদীর প্রস্থ নেমেছে অর্ধেকে

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

কর্ণফুলী নদীটি ভারতের লুসাই পাহাড় থেকে শুরু হয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের মধ্য দিয়ে বঙ্গোপসাগরে মিলিত হয়েছে। কিন্তু গত ১৪ বছরের ব্যবধানে এ নদীর প্রস্থ নেমে এসেছে অর্ধেকে। এভাবে চলতে থাকলে কর্ণফুলী পরিণত হবে খালে, এমনটাই আশঙ্কা করছেন নদী বিশেষজ্ঞরা।

২০০৬ সালে দ্বিতীয় কর্ণফুলী সেতু নির্মাণের সময় এডিবির মাস্টারপ্ল্যান ও বিএস শিট অনুযায়ী এ নদীর প্রস্থ ছিল ৮৮৬ দশমিক ১৬ মিটার। কিন্তু ১৪ বছরের ব্যবধানে তা অর্ধেকেরও বেশিতে নেমে এসেছে বলে দাবি চট্টগ্রাম নদী ও খাল রক্ষা আন্দোলনের নেতাদের।

তাদের মতে, ভাটার সময় বর্তমানে শাহ আমানত সেতুর নিচে নদীর প্রস্থ থাকছে মাত্র ৪১০ মিটার। যা জোয়ারের সময় চর অতিক্রম করে সর্বোচ্চ ৫১০ মিটার পর্যন্ত পৌঁছায়। এছাড়া ভরাট হয়ে যাওয়া নদীর অন্তত ৩০০ মিটার এলাকা দিয়ে চলতে পারে না নৌযান। ফলে নদীর মাঝ বরাবর অঘোষিত ঘাট বসিয়ে যাত্রী পারাপার করছে স্থানীয়রা।

চট্টগ্রাম নদী ও খাল রক্ষা আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক আলীউর রহমান বলেন, কর্ণফুলী নদীর শাহ আমানত সেতু থেকে নগরের ফিরিঙ্গিবাজারের মনোহরখালী পর্যন্ত ২১ দিন ধরে একটি জরিপ চালানো হয়েছে। যেন কর্ণফুলী দখল ও দূষণের ভয়াবহ চিত্র ফুটে উঠেছে।

 

4


অনলাইন নিউজ পোর্টাল
অনলাইন নিউজ পোর্টাল
এই বিভাগের আরো খবর