মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪, আষাঢ় ৪ ১৪৩১, ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

সাহিত্য

এ’শহরে নির্মল আনন্দের বড় অভাব, মানুষ শুধু আনন্দ খোঁজে

 আপডেট: ২২:৩৩, ১০ আগস্ট ২০২৩

এ’শহরে নির্মল আনন্দের বড় অভাব, মানুষ শুধু আনন্দ খোঁজে

এ শহরে রাস্তার কোল ঘেঁষা হাজারো মানুষের দেখা মিলে প্রতি নিয়ত, যাদের নেই কোন আবাসস্থল, দিন ফুরিয়ে রাত আসে। তবুও ঠাঁই মেলেনা কভু! ঠাঁই মিলে রাস্তার কোল ঘেঁষা দো'পাস আর আবর্জনার স্তুপ !দো'চোখের উষ্ণ জল শুকিয়ে জমাট বেঁধে যায়, ভর দুপুরের তপ্ত রোদে গা পুড়িয়ে ফর্সা রংটা ফ্যাকাসে হয়ে অযত্ন চুলে বাঁধে জট। দুলাই ধূসরিত হয় মুখখানা। লালাটে ভরা বিষণ্নতার চাপ!

এ-শহরে হাজারো খেটে খাওয়া মানুষ! যাদের রাশি রাশি অর্থ নেই। নিত্যদিনের ঘাম ঝরানো অর্থেই তাদের সম্বল। নেই কোন ঐশ্বর্যের সুবাতাস। দুমুঠো ভাত আর এক চিমটি লবনে পরিতৃপ্তির হাসি। পরিবারের মুখে এক চিলতে হাসিতে সারাদিনের ক্লান্তি আর ঘামো ঘামো শরীরের কথা ভুলিয়ে দেয়।

কিন্তু এদেশের এক শ্রেণির মানুষ তাদের পেটে পদাঘাত করে খেতে বড্ড ভালোবাসে। আইনের দোহাই দিয়ে তাদের ক্ষুধায় মারতে চায়, যেন তারা ক্ষুধার জ্বলনে-পুড়নে আনন্দ খুঁজে পায়।এশহরে ভালো মানুষের বড্ড অভাব!

খুলে দাও হৃদয়ের বন্ধ দুয়ার, বাড়িয়ে দাও দু'টো হাত। নাও ডেকে ঘরে পথ হারাদের, পথেই যাদের কাটে রাত।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল ২৪