মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২, জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

উত্তর কোরিয়ায় জ্বর নিয়ে ২১ জনের মৃত্যু

 আপডেট: ১১:০৮, ১৪ মে ২০২২

উত্তর কোরিয়ায় জ্বর নিয়ে ২১ জনের মৃত্যু

সারা বিশ্ব যখন করোনাভাইরাসে ভয়াবহ আকারে ভূগেছে উত্তর কোরিয়া তখন সীমান্ত বন্ধ করে দিয়ে বাঁচার চেষ্টা করেছে। কতোটা বাঁচতে পেরেছে তা কেবল তারা জানে। তবে এবার যে তারা বিপাকে পড়েছে তা বোঝাই যাচ্ছে। আজ শনিবার উত্তর কোরিয়া জানিয়েছে, তাদের দেশে জ্বরের উপসর্গ নিয়ে আরো ২১ জন মারা গেছে। 

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএর বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো উত্তর কোরিয়ায় একজনের শরীরে করোনা ধরা পড়ার খবর আসে। সেদিনই উত্তর কোরিয়ায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়। কঠোর লকডাউন দেওয়া হয় সারা দেশে। পরের দিন মানে গতকাল শুক্রবার প্রথমবারের মতো করোনায় দেশটিতে কারো মৃত্যুর খবর আসে।

তবে দেশটিতে এক ধরনের জ্বর ছড়িয়ে পড়েছে। যা তারা আগে থেকে নির্ণয় করতে
পারেনি। 

কেসিএনএ জানিয়েছে, ‘১৩ মে দেশজুড়ে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৪৪০ জনের জ্বরের খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৮১,৪৩০ জন সুস্থ হয়েছেন। ২১ জন মারা গেছেন।’ 

নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি এই যে মারা গেছেন যারা তাদের মধ্যে করোনা রোগী কয়জন বা আদৌ করোনায় তাদের কেউ মারা গেছেন কি না। আগের দিন যেমন ৬ জনের মৃত্যুর খবরের সঙ্গে একজনের করোনায় মারা যাওয়ার খবর দেওয়া হয়েছিল। 

কেসিএন আরো জানিয়েছে, ‘দেশজুড়ে অসুস্থ মানুষের মোট সংখ্যা ছিল ৫২৪,৪৪০। এর মধ্যে ২৩৪,৬৩০ জন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। ২৮৮,৮১০ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ২৭।’ 

উত্তর কোরিয়া তাদের জনগণকে কোভিড-১৯ এর কোনো টিকা দেয়নি। গত বছর চীনের তৈরি সিনোভ্যাক টিকা এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার ডোজ দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু দেশটি দুই প্রস্তাবই প্রত্যাখ্যান করে।

মন্তব্য করুন: