ব্রেকিং:
ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ৭, আহত ৭০০ পিকে হালদারের ৬২ সহযোগীর হাজার কোটি টাকা জব্দ সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত মোরশেদ খান, স্ত্রী আইসিইউতে বাইডেনের শপথ নির্বিঘ্ন করতে ২০ হাজার সেনা মোতায়েন কলকাতায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

শুক্রবার   ১৫ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ২ ১৪২৭,   ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভায় ভোট শনিবার
২৯

প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া, দুজনকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০২০  

মাগুরা শহরে শুক্রবার রাতে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া দিতে দেখা গেছে একদল যুবককে। এ সময় জেলা বিএনপির কার্যালয়সহ দুই জায়গায় বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

এছাড়া দুটি আলাদা জায়গায় যুবদল ও যুবলীগের দুই কর্মীকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনার জন্য ছাত্রলীগের কর্মীদের দায়ী করেছেন হামলায় আহত একজনের স্বজনরা। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ছাত্রলীগের নেতারা।  

পুরো ঘটনায় পুলিশের নীরব ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আহতদের স্বজন ও এলাকাবাসীরা।  

হামলায় আহত দুইজনকে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে একজন মারুফ (৩২) মাগুরা শহরের কেশবমোড় এলাকায় বদরুল আলমের ছেলে।  

আহতের ভাই শাহরুখ উদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কেশব মোড় এলাকায় একদল মুখোশধারী যুবক তার ভাইকে কুপিয়ে জখম করে। তবে কারা কী কারণে হামলা করেছে তা তারা জানেন না।  

এর আধাঘণ্টা পর রাত ৮টার দিকে শহরের ভায়নার মোড়ে যুবদল কর্মী খান মাহাবুবুর রহমান শান্তির (৩০) ওপর হামলা হয়। তিনি ভায়না এলাকার মিলন খানের ছেলে। গুরুতর আহত আবস্থায় মাহাবুবুর রহমান শান্তিকে প্রথমে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তির পর রাতেই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।


অনলাইন নিউজ পোর্টাল
অনলাইন নিউজ পোর্টাল
এই বিভাগের আরো খবর