সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪, আষাঢ় ৩১ ১৪৩১, ০৮ মুহররম ১৪৪৬

ব্রেকিং

ঢাবি ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের পিটুনিতে ছত্রভঙ্গ কোটাবিরোধীরা নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী ’৭১-এর পরাজিত অপশক্তির আস্ফালন মেনে নেওয়া হবে না: কাদের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা হলে কঠোর ব্যবস্থা : ডিএমপি কমিশনার মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া : প্রধানমন্ত্রী নিজেকে রাজাকার বলে স্লোগান দেওয়া রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল, শাস্তির দাবি ‘আমি মারা যেতে পারতাম’-নিউইয়র্ক পোস্টকে ট্রাম্প আমেরিকানদের শান্ত থাকার আহ্বান বাইডেনের নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন কেপি শর্মা অলি চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে কোকেনসহ নারী যাত্রী গ্রেফতার

জাতীয়

‘ঝুলন্ত রায়’ মানেন না কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীরা

 আপডেট: ২০:৫৩, ১০ জুলাই ২০২৪

‘ঝুলন্ত রায়’ মানেন না কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীরা

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিলের দাবিতে রাজধানীর কয়েকটি স্পটের ন্যায় আগারগাঁও অবরোধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা। ফলে মিরপুর থেকে বিজয় সরণি ও আগারগাঁও থেকে শ্যামলী সড়কে যানবাহন চলাচল করছে না।

 এদিকে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে জারি করা পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর স্থিতাবস্থার (স্ট্যাটাসকো) ফলে আপাতত কোটা বাতিল করে দেওয়া পরিপত্র বহাল থাকবে।

হাইকোর্টের রায়ের ওপর স্থিতাবস্থা থাকার বিষয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলছেন, কোটা বাতিলে হাইকোর্টের ঝুলন্ত রায় মানি না। আমরা স্থায়ী সমাধান চাই।  

বুধবার (১০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১ টার পরে রাজধানীর আগারগাঁও চার রাস্তার মোড়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীরা অবস্থান নেন। সেখানে তারা গান ও স্লোগানে বিক্ষোভ করেন। এছাড়া মেট্রোরেলের পিলারগুলো ব্যবহার করে রাস্তা জুড়ে লম্বালম্বি দড়ি টানিয়ে দেন তারা।  

জানা যায়, আন্দোলনকারীরা অধিকাংশ শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এছাড়াও আশপাশ এলাকার বিভিন্ন কলেজ ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও উপস্থিত হয়েছেন।

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি অনুষদ চতুর্থ বর্ষের ছাত্র আশিক আহমেদ, আমাদের এক দফা দাবি। প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বাদে সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে সব কোট বাদ দিতে হবে। কোটা বাতিলে হাইকোর্টের ঝুলন্ত রায় মানি না। আমরা স্থায়ী সমাধান চাই।  

তিনি আরও বলেন, নির্দিষ্ট একটি ট্রাইবুনাল গঠন করে পুরোপুরি একটি আইন পাশ করতে হবে। নইলে আমরা রাজপথে আন্দোলন করেই যাব।  

এদিকে আগারগাঁও অবরোধ হওয়ার খবর পেয়ে মিরপুর থেকে মতিঝিল ও যাত্রাবাড়ীগামী বাসগুলো মিরপুর ১০ থেকেই ঘুরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। অনেক বাস মিরপুর-১২ এর স্ট্যান্ড থেকেই ছাড়ছে না। এতে প্রত্যেকটি মোড়ে যাত্রীরা বাস সংকটের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে ভোগান্তিতে পড়েছেন।

তবে আগারগাঁও মেট্রোরেল স্টেশন চালু রয়েছে। অনেক সাধারণ মানুষ হেঁটে এসে আগারগাঁও থেকে চড়ছেন।