ব্রেকিং:
বিক্ষোভের মুখে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কিছুক্ষণ সময় লুকিয়ে ছিলেন বাঙ্কারে ‘আমেরিকান স্প্রিং‘ এ সরগরম চীনা সোশ্যাল মিডিয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাদরাসায় ভর্তি শুরু করতে কোনো বাঁধা নেই: হাইয়াতুল উলইয়া

বুধবার   ০৩ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭,   ১০ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
রেড অ্যালার্ট: মুম্বাইয়ের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ করোনার মধ্যেই ইবোলার প্রাদুর্ভাব: কঙ্গোতে চারজনের মৃত্যু করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ৭৭ হাজার ছাড়ালো
৯৩৭

চীন এবারও মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছে

প্রকাশিত: ১৫ মে ২০২০  

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপ ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাবে এবারও ভেটো দিয়েছে চীন।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সহিংসতায় উদ্বেগ জানিয়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে নিন্দা প্রস্তাব জানিয়েছে যুক্তরাজ্য এবং ইউরোপের ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো।

তবে কূটনৈতিক সূত্রে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে,  নিরাপত্তা পরিষদে চীন এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে।

বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সঙ্গে বড় ধরনের সহিংসতায় বেসামরিক লোক নিহত হচ্ছে বলে দাবি করে নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনটি শুরু করে যুক্তরাষ্ট্র।দেশটির উত্তরপশ্চিম রাজ্যে অধিকতর স্বায়ত্বশাসনের দাবি জানিয়ে আসা জাতিগতভাবে রাখাইন বৌদ্ধ বিদ্রোহীদের সঙ্গে নৃশংস গৃহযুদ্ধে জড়িয়ে পড়ছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী।

এক বিবৃতিতে যুক্তরাজ্য জানায়, এই সংঘাত ইতিমধ্যে অভ্যন্তরীণ বাস্তুচ্যুতি, মানবিক সহায়তার ওপর অতিরিক্ত বিধিনিষেধ এবং বেসামরিক হতাহতের সংখ্যা বাড়িয়ে তুলেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য বেলজিয়াম, এস্তোনিয়া, ফ্রান্স এবং জার্মানিও একই ধরনের উদ্বেগ প্রকাশ করে। তারা মিয়ানমারজুড়ে অতিসত্ত্বর যুদ্ধ বিরতির আহ্বান জানায়।

রোহিঙ্গা মুসলিমদের কথা উল্লেখ করে তারা জানায়, আমরা দেশটিতে মহামারী প্রতিরোধের গুরুত্বের ওপর জোর দিচ্ছি।  যাতে ঝুঁকিতে থাকা সব ধরনের শরণার্থী এবং অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তচ্যুত সম্প্রদায়ের সুরক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব হয়।

তবে নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে এই প্রস্তাবে সমর্থন দেয়নি চীন। এর আগে মিয়ানমার পরিস্থিতি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় গত ফেব্রুয়ারিতে। তখন দেশটিতে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপের বিষয়ে বিরোধিতা করে চীন এবং ১৫ সদস্যের যৌথ বিবৃতি গ্রহণে বাধা দেয়।


এই বিভাগের আরো খবর