ব্রেকিং:
সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট ৪ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্বাচন উপলক্ষে ১৮ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন.

মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ২৯ ১৪২৬  

সর্বশেষ:
সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট ৪ মার্চ ওয়েজবোর্ডের বিষয়টিকে আমরা বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি
১৬০

‘ওয়েজবোর্ডের বিষয়টিকে আমরা বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি’

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০১৯  

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নবম ওয়েজবোর্ডের বিষয়টিকে আমরা বিশেষভাবে গুরু্ত্ব দিচ্ছি। আমরা নতুন মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকেই এটা এজেন্ডা আকারে তুলেছি। সেখানেই হাই পাওয়ার একটি মন্ত্রিপরিষদ কমিটি করা হয়। সেখানে সিনিয়র মন্ত্রীদের রাখা হয়েছে।

 

শনিবার (২৬ জানুয়ারি) সংবাদপত্র ও বার্তা সংস্থার কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়াতে নবম ওয়েজবোর্ড নিয়ে গঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকের বৈঠকে কী হলো, এই মুহূর্তে বলার মতো কিছু আমাদের হাতে নেই। আমরা নবম ওয়েজবোর্ড নিয়ে নতুন একটি জার্নি শুরু করেছি মাত্র। এই জার্নিতেই আমরা আশা করছি এর সমাধান করতে পারব।

এমনকি আমরা কমিটিতে যারা আছি, তারা বিষয়টিকে অধিক গুরুত্ব দিচ্ছি তার প্রমাণ হচ্ছে— শনিবার বন্ধের দিন আমরা মন্ত্রীরা এটা নিয়ে বসে মিটিং করলাম, বলেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

এমনকি আমরা ধন্যবাদ জানাই নোয়াবের (সংবাদপত্র সম্পাদকদের সংগঠন) নেতাদেরও, কারণ শর্ট নোটিশে এসে আমাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন তারা।

কাদের বলেন, বৈঠকে উপস্থিত সংবাদপত্র সম্পাদকরা আমাদের সঙ্গে খোলামেলা কথা বলেছেন। তারা তাদের মনের কথা ব্যক্ত করেছেন। তথ্যমন্ত্রী এর আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। আবারও আমরা কথা বলব। তবে আজ কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারিনি। আশা করছি, আলোচনার মাধ্যমে ভালো একটা সমাধান হবে।

আমরা একটি বটম লাইন ধরে এগুচ্ছি। বটম লাইনটি কী— এমন প্রশ্নের জবাতে ওবায়দুল কাদের বলেন, বটম লাইন হচ্ছে, আমরা কো-অপারেশন শুরু করেছি। আশা করি, কো-অপারেশনের মাধ্যমে একটা সমাধানে পৌঁছা যাবে।

টেলিভিশন সাংবাদিকদের বিষয়টি নবম ওয়েজবোর্ডে যুক্ত করা হবে কি না— এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, টেলিভিশনর বিষয়টি আমরা গুরুত্ব দেব। এটা আমাদের আলোচনার মধ্যে আসবে।

দেশে কিছু ভুঁইফোড় অনলাইন রয়েছে— এসব বন্ধে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হবে কি না— এক সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অনলাইন পত্রিকার প্রয়োজন আছে। কিছু অনলাইন ভালো করছে। তবে যারা সত্য সংবাদ প্রচারের চেয়ে প্রপাগান্ডা প্রচারে বেশি ব্যস্ত— সেগুলোর বিরুদ্ধে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বৈঠকে মন্ত্রিসভার সদস্যরা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন— প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম ও দৈনিক মানবজমিনের সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী।


অনলাইন নিউজ পোর্টাল
অনলাইন নিউজ পোর্টাল
এই বিভাগের আরো খবর