ব্রেকিং:
সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট ৪ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্বাচন উপলক্ষে ১৮ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন.

শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৬  

সর্বশেষ:
সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট ৪ মার্চ ওয়েজবোর্ডের বিষয়টিকে আমরা বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি
১৮৬

চবি গণিত বিভাগের মিলনমেলা শুরু

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০১৯  


‘এসো বন্ধনের মোহনায়, গণিতের মিলনমেলায়’ স্লোগানে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে শুরু হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) গণিত বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তীর মিলনমেলা।

শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে চবি গণিত অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত এ মিলনমেলার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। 

তিনি বলেন, চবির ১০০ একর জায়গার ওপর দেশের সবচেয়ে বড় হাইটেক পার্ক গড়ে তোলার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে মন্ত্রী জায়গা পরিদর্শন করে অনুমোদন দিয়েছেন। ব্যয় হবে ১৪ হাজার কোটি টাকা। আগামী ৩ মাসের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি সম্পাদনের মাধ্যমে এ পার্কের নির্মাণকাজ শুরু হবে। এ ছাড়া গণিত বিভাগকে আধুনিক ফ্যাকাল্টিতে পরিণত করা হবে।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন গণিত বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. গণেশ চন্দ্র রায়, সিনিয়র শিক্ষক প্রফেসর ড. নীলরতন ভট্টাচার্য্য, প্রফেসর মোহাম্মদ ওসমান গণি, প্রফেসর মোহাম্মদ আবু তাহের, প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউছুফ, মোহাম্মদ শাহ আলম, মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, কনক কুমার পুরকায়স্থ, মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন, মুহাম্মদ মহসীন চৌধুরী। সূচনা বক্তব্য দেন মিলনমেলা পরিষদ আহ্বায়ক কবি রাশেদ রউফ। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সদস্যসচিব মোহাম্মদ মাজহারুল হক। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাচিকশিল্পী আয়েশা হক শিমু।

প্রধান অতিথি বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর আমার কাজের টেবিলকে জায়নামাজ ভেবে কাজ করে চলেছি। দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, অনিয়মকে প্রশ্রয় দিইনি। সাড়ে তিন বছরে এক দিনের জন্যও বিশ্ববিদ্যালয়কে বন্ধ রাখা হয়নি। নিয়মিত পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। শতভাগ অটোমেশনের মাধ্যমে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। ভর্তি বাণিজ্য, নিয়োগ বাণিজ্য, টেন্ডারবাণিজ্য সব কিছু আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে বন্ধ করেছি। মূলত আপনাদের প্রসারিত হাত, মেধা, শ্রম ও সহযোগিতা পেয়েছি বলে অসম্ভবকে সম্ভব করতে পারছি।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রফেসর মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে স্মৃতিচারণ পর্বে সূচনা বক্তব্য দেন মিলনমেলার যুগ্ম আহ্বায়ক এসএম রেজাউল করিম স্বপন। আলোচনা করেন মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন, সৈয়দ মোহাম্মদ আরিফ, অধ্যাপক প্রদীপ রায়, স্বপন কুমার ধর, মোহাম্মদ আজিজুল হক নিউটন, মোহাম্মদ ইমরুল কাদের ভূঁইয়া, বিধান দত্ত, শোয়েব নজির ঢালি, সৈয়দ হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

উদ্বোধনী সংগীত পরিবেশন করে সংগীত ভবন। এ ছাড়া জাতীয় ও ভারতীয় অতিথি শিল্পীদের পরিবেশনায় ছিল নৃত্য ও সংগীতানুষ্ঠান।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় সমাপনী অধিবেশনে প্রধান অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার।

সন্ধ্যা ৬টায় গণিত বিভাগের সাবেক শিক্ষকদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন মিলনমেলার যুগ্ম আহ্বায়ক সৈয়দ তাজুল ইসলাম। সূচনা বক্তব্য দেবেন প্রফেসর ড. উজ্জ্বল কুমার দেব। আলোচক থাকবেন মোহাম্মদ আসহাব উদ্দিন, অ্যাডভোকেট এএসএম শাহনূর, মনিলাল দাশ, আনোয়ার হোসেন, হাসান মাহমুদ, সামশুল হক দুলাল, অধ্যাপক মোহাম্মদ আব্দুল আলিম, অধ্যাপক রণজিৎ কুমার দত্ত, অধ্যাপক মোহাম্মদ হাসানুল ইসলাম, অধ্যাপক নাসিমা আক্তার লাকী, মোহাম্মদ সাজ্জাদুল হক, মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম। অধ্যাপক মোহাম্মদ আমিরুল মোস্তফার সভাপতিত্বে স্মৃতিচারণ পর্বে সূচনা বক্তব্য দেবেন মিলনমেলার যুগ্ম আহ্বায়ক পরিমল কান্তি ধর। আলোচনায় অংশ নেবেন প্রফেসর ড. সুনীল ধর, অধ্যাপক মোহাম্মদ কামাল হোসেন, অধ্যাপক সুপ্রতিম বড়ুয়া, ফজলুর রহমান, শ্রীবাস দাশসহ বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থীরা।


অনলাইন নিউজ পোর্টাল
অনলাইন নিউজ পোর্টাল
এই বিভাগের আরো খবর