মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২, জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

ফিচার

ফরিদপুর দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৫

 আপডেট: ১২:৫৯, ৮ মে ২০২২

ফরিদপুর দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৫

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার যদুনন্দীতে দুই উপজেলার দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নান্নু ফকির নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো ১৫ জন।
গত বুধবার রাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষ হয়। এছাড়া সালথার তেলিসালথায় দুর্বৃত্তরা একটি দোকান ও দুটি  বাড়ি ভাঙচুর করেছে। নিহত নান্নু ফকির সালথার যদুনন্দী গ্রামের হাতেম ফকিরের ছেলে।

এদিকে পুলিশ জানায়, বুধবার সন্ধ্যার পর সালথা উপজেলার যদুনন্দী এলাকার কাইয়ুম মোল্যা ও পাশের বোয়ালমারী উপজেলার রুপাপাত এলাকার সোনা মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে একে অপরের ওপর হামলা চালায়। দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা চলতে থাকে রাত ১০টা পর্যন্ত। এতে নান্নু ফকির নিহত হন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে গভীর রাত পর্যন্ত সেখানে সংঘর্ষকারীরা স্লোগান দিতে থাকে ও উত্তেজনা চলতে থাকে।

ফরিদপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নগরকান্দা-সালথা সার্কেল) মো. সুমিনুর রহমান বলেন, সংঘর্ষের সময় ইটের আঘাতে নান্নু ফকির নামে একজন নিহত হওয়ার খবর পেয়েছি। পরিস্থিতি আপাতত শান্ত রয়েছে। সংঘর্ষ এড়াতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এছাড়া একই রাতে তেলিসালথায় দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে বেশ কয়েকটি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, মাসুদ নামে জনৈক ব্যক্তির নেতৃত্বে সেখানে আবু তালেবের একটি দোকান এবং ফিরোজ মাস্টার ও ফজলুর রহমানের দুটি বাড়ি ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা।

মন্তব্য করুন: