ব্রেকিং:
১০ আগস্ট পর্যন্ত বাড়লো চলমান বিধি-নিষিধ বাংলাদেশে ভারতীয় টিকা `কোভ্যাক্সিন` ট্রায়ালের অনুমোদন ছক্কা গ্যালারিতে পড়লেই দিতে হবে ‘নতুন’ বল! চীনে আবারও বাড়ছে করোনা, চলমান লকডাউন বাড়ছে কিনা সিদ্ধান্ত আজ

মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

সর্বশেষ:
১১ আগস্ট থেকে দোকানপাট ও অফিস খোলার সিদ্ধান্ত বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৪২ লাখ, আক্রান্ত প্রায় ২০ কোটি গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় শনাক্ত কমলেও বেড়েছে মৃত্যু সিডনিতে আরো এক দফা বাড়লো লকডাউন, রাস্তায় নেমেছে সেনা সদস্যরা আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে মাঝারি ও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস খাবারে বিষক্রিয়ায় মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু, ১৭ শিশু হাসপাতালে রামেক হাসপাতালে করোনা কেড়ে নিল আরও ১৯ জনের প্রাণ আশুলিয়ায় ৫ টাকা ভাড়া বেশি চাওয়ায় অটোচালককে হত্যা!
২৫৪

সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে এবার গ্রেফতার সুশান্তের বন্ধু

প্রকাশিত: ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত এবার নতুন করে গতি পেল। সুশান্তকে মাদক সরবরাহের অভিযোগে প্রাক্তন সহকারী পরিচালক ও তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু ঋষিকেশ পাওয়ারকে গ্রেফতার করেছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)। সুশান্তের সঙ্গে বেশ কিছু ছবিতে কাজ করেছেন ঋষিকেশ।

এনসিবি কর্মকর্তাদের সন্দেহ, ঋষিকেশ শুধু সুশান্তকে নিষিদ্ধ মাদকই সরবরাহ করতেন না তাকে নানা ধরনের নেশা করার প্রলোভনও দেখাতেন। ইতিমধ্যেই ঋষিকেশের ল্যাপটপ ও মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

এনসিবির বরাত দিয়ে ভারতের গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরেই তার উপরে নজর ছিল এনসিবির কর্মকর্তাদের। এর আগে ঋষিকেশকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছিল এনসিবি। আগাম জামিনের আবেদনও করেছিলেন তিনি। কিন্তু আদালতে সে আবেদন ধোপে টেকেনি। মঙ্গলবার বলিউডের প্রাক্তন সহকারী পরিচালককে ফের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়। জিজ্ঞাসাবাদের পর ঋষিকেশের উত্তরে সন্তুষ্ট ছিলেন না এনসিবির কর্মকর্তারা। সেই কারণেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

২০২০ সালের ১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। প্রথমে মুম্বাই পুলিশ এই মামলার তদন্ত শুরু করেছিল। তারপর সুশান্তের বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে বিহার পুলিশ। পরে সুশান্ত মামলার তদন্তভার যায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার হাতে। এরপর বিষয়টি খতিয়ে দেখার দায়িত্ব নেয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট। আর মাদক মামলার তদন্ত শুরু করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। মাদক মামলাতেই সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই সৌভিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। শর্ত সাপেক্ষে জামিন পান দু’জন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এনসিবি দপ্তরে হাজিরা দিতে হয়েছে দীপিকা পাড়ুকোন, সারা আলি খান, শ্রদ্ধা কাপুর, রাকুলপ্রীত সিংকে। গ্রেফতার করা হয়েছিল কমেডিয়ান ভারতী সিং এবং তার স্বামী হর্ষ লিম্বাচিয়াকে। সেই দু’জনও জামিনে মুক্ত।