ব্রেকিং:
সেভেন স্টার গ্রুপের ৬ শীর্ষ সন্ত্রাসী আটক ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত ৭, আহত ৭০০ পিকে হালদারের ৬২ সহযোগীর হাজার কোটি টাকা জব্দ

শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৩ ১৪২৭,   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভায় ভোট শনিবার
৩৩

ভিন্ন আমেজ পেতে শীতে সুন্দরবন ভ্রমণ

প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০২০  

সে যাত্রা ছিল বাসে করে যেয়ে মোংলা থেকে ট্রলারে করে করমজলে। কিন্তু এবার লঞ্চে করে তিনদিনব্যাপী সুন্দরবন যাত্রাটা অন্যরকম ছিল। শীতে সুন্দরবনের ভ্রমণ সত্যিই অন্যরকম উপভোগের ব্যাপার। ’

 

প্রাকৃতিক রহস্যঘেরা সুন্দরবন ভ্রমণ করে এ অভিব্যক্তি ব্যক্ত করেন বরিশালে কর্মরত বেসরকারি ব্যাংক কর্মকর্তা ফিরোজ মিয়া।


সম্প্রতি তিনি সপরিবার সুন্দরবন ভ্রমণ করেছেন। এসময় সুন্দরবনের টাইগার পয়েন্টে রয়েল বেঙ্গল টাইগারের দেখা না পেলেও তার পায়ের ছাপের দেখা পেয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘সুন্দরবনের নাম শুনলে প্রথমেই রয়েল বেঙ্গল টাইগারের কথা মাথায় আসে। সুন্দরবনে গিয়ে সবাই বাঘের দেখা পেতে চায়, কিন্তু খুব কম মানুষেরই সে সৌভাগ্য হয়। আমি বাঘের দেখা না পেলেও তার পায়ের ছাপের দেখা পেয়েছি। ’

ফিরোজ মিয়া বলেন, ‘আমি কখনো ভাবতে পারিনি সুন্দরবন আসলেই এত সুন্দর! হরিণের ছোটাছুটি, পাখির কলকাকলি, বানরের চঞ্চলতা আমাকে বিমোহিত করেছে। বিশেষ করে যখন বনের ভেতর দিয়ে লঞ্চে করে যাওয়া হয় তখন কুমির, হরিণ, বন্য শুকর, পাখি, বানর এবং বনের গাছগাছালি দেখতে খুব অসাধারণ লাগে, যা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়। তাছাড়া, বেলা গড়াতে থাকলে সুন্দনবনের রূপও বদলাতে থাকে— সকালে এক রকম, দুপুরে এবং রাতে দেখতে আরেক রকম। ’

উড়া ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলসের সত্ত্বাধিকারী শরিফুল ইসলাম হিরন বলেন, ‘শীতের সুন্দরবন শান্ত। ঝড়-বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা থাকে না। এ কারণে পর্যটকরা ভ্রমণের জন্য এসময়টাই বেছে নেয়। এসময় লঞ্চ কিংবা ট্রলারে চেপে অথবা জালি বোটে নদী ও ম্যানগ্রোভ সুন্দরবনের প্রাকৃতিক শোভা উপভোগ করতে আসেন দেশি-বিদেশি পর্যটকরা। শীত বাড়তে থাকলেও সুন্দরবনে পর্যটকদের ভিড় বেড়েছে। ’

 

তিনি বলেন, ‘স্থানীয় লোকজনের পাশাপাশি দূরদূরান্ত থেকে আসা পর্যটকরা বন্ধু-বান্ধব, পরিবার–পরিজন নিয়ে সুন্দরবনের সৌন্দর্য উপভোগ করছেন, ঘুরে বেড়াচ্ছেন বনসংলগ্ন নদীতে। হরিণ ও বানরের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রজাতির পাখি আকর্ষণ করছে পর্যটকদের। সুন্দরবনের করমজল, হাড়বাড়িয়া, হিরণপয়েন্ট, কটকা, কচিখালী ও দুবলার চরে ভ্রমণ করছেন পর্যটকরা। ’

এ উপলক্ষে খুলনা ও মোংলার হোটেল-মোটেলগুলো নতুন সাজে সেজেছে। থার্টিফার্স্ট নাইট ও নতুন বছর বরণ করতে সুন্দরবনে পর্যটকদের আগমন আরও বাড়বে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।


অনলাইন নিউজ পোর্টাল
অনলাইন নিউজ পোর্টাল